চ্যাম্পিয়নশিপ লিগের শেষ দিনে হাতাহাতি!

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট ২২:৪১ , মে ২৪ , ২০১৯

বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ ফুটবল লিগে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে পুলিশ এফসি। শুক্রবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ট্রফি নিয়ে উল্লাসও করেছে তারা। অবশ্য উল্লাসের এই দিনটিতে অনভিপ্রেত ঘটনারও জন্ম দিয়েছে তাদের দল। তাতে বাফুফে কর্মকর্তাদের সঙ্গে বিবাদে জড়িয়ে দিনটি হয়ে থাকলো কদর্যময়!   

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ম্যাচ শেষের ঘটনা এটি। ঘটনার সূত্রপাত মাঠের ভিতরে প্রবেশ নিয়ে। একজন সাদা পোষাকধারী পুলিশ সদস্য মাঠে ঢুকতে চাইলে তাকে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। এ নিয়ে বাফুফে ও পুলিশ দলের সদস্যরা বিবাদে জড়িয়ে পড়েন। এক পর্যায়ে তা রূপ নেয় হাতাহাতিতে!

বাফুফের কম্পিটিশিন কমিটির ম্যানেজার জাবের বিন তাহের আনসারি হামলার শিকার হন এ সময়। বাংলা ট্রিবিউনকে এই কর্মকর্তা ঘটনার বিবরণ দিয়ে জানান, ‘ওই সাদা পোষাকধারী পুলিশ সদস্যের মাঠে ঢোকার অ্যাক্রিডিটেশন কার্ড ছিলো না। তাই তাকে মাঠে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছিল না। এ নিয়ে সেই সদস্যটি পুরস্কার বিতরণী শেষে আমার ওপর চড়া হয়। পরবর্তীতে অন্যরাও এতে যোগ দেয়। আমাদের বেসরকারি নিরাপত্তা কর্মীরাও এই হামলার শিকার হয়। যা কোনও মতে কাম্য ছিল না।’

পুলিশ এফসি আগামী মৌসুমে প্রিমিয়ার লিগে খেলবে। তাদের সঙ্গে রানার্সআপ হিসেবে উত্তর বারিধারাও থাকবে। তবে পুলিশ দলের এমন আচরণ নিয়ে উদ্বিগ্ন বাফুফ। জাবের বলেছেন, ‘এখন এই ঘটনা প্রয়োজন অনুযায়ী ডিসিপ্লিনারি কমিটির কাছে যেতে পারে। কেননা এমন ঘটনা কোনমতেই কাম্য নয়। মাঠে যার ঢোকার অনুমতি নেই, যাকে আমরা চিনি না। তাকে কেন ঢুকতে দেয়া হবে।’

পুলিশ দলের সহকারী ম্যানেজার ও এডিশনাল এসপি নুসরাত এদিব লুনা অবশ্য এখনই এই বিষয়ে বিস্তারিত মন্তব্য করতে রাজি হননি। মাঠে এমন ঘটনা হবে তা তিনি নিজেও আশা করেননি, ‘এই ঘটনায় আমাদের কনস্টেবল শামীম হাসপাতালে। আামি নিজেও জাবের ভাইয়ের সঙ্গে কথা বলেছি। ঘটনা বোঝার চেষ্টা করছি। ওই পুলিশ সদস্যের সঙ্গে কথাও বলবো। তবে যা হয়েছে তা কাম্য ছিলো না। পুলিশ দল অনেক চেষ্টার পর চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। এই উৎসবের সময় কিনা অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটলো। তবে এখানে কারো গাফিলতি পেলে তার বিপক্ষে প্রয়োজন অনুযায়ী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।’

/টিএ/এফআইআর/

x