‘মোস্তাফিজের জোড়া উইকেট শিকার টার্নিং পয়েন্ট’

রবিউল ইসলাম, টন্টন থেকে ১৩:০২ , জুন ১৮ , ২০১৯

মাশরাফি মুর্তজা।ক্যারিবিয়ানদের উড়িয়ে দিয়ে সেমিফাইনালের পথটা জটিল হতে দেয়নি মাশরাফিরা। ৫ ম্যাচে ৫ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের ৫ নম্বরে থাকা বাংলাদেশ সেমির আশা এখনও বাঁচিয়ে রেখেছে। এই সমীকরণটা আরও জটিল হয়ে যেত ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে জিততে না পারলে। এই জয়ের পেছনে অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজা কৃতিত্ব দিলেন মোস্তাফিজুর রহমানকে।

কাটার মাস্টার মোস্তাফিজ নিজের ৫০তম আন্তর্জাতিক ম্যাচটি রাঙিয়েছেন পারফর্ম করেই। এদিন ৯ ওভার বোলিং করে ৫৯ রান দিয়ে নিয়েছেন তিনটি উইকেট। যার দুটি আবার একই ওভারে। ৪০তম ওভারে চার বলের ব্যবধানে ফিরিয়েছেন বিপজ্জনক হয়ে ওঠা শিমরন হেটমায়ার এবং বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান আন্দ্রে রাসেলকে। তাদের দ্রুত ফেরানোর কারণেই স্কোরটা নাগালের মধ্যে রাখতে পারে বাংলাদেশ। তাইতো বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজার কাছে ম্যাচের টার্নিং পয়েন্ট তাই মোস্তাফিজের দুর্দান্ত ওভারটি, ‘একই ওভারে মোস্তাফিজ যে দুই উইকেট পেলো সেটাই টার্নিং পয়েন্ট ছিল। ওই সময় ওরা না ফিরলেও স্কোরটা আরও বড় হতে পারতো।’

বল হাতে মোস্তাফিজ গুরুত্বপূর্ণ তিনটি উইকেট নিলেও ব্যাট হাতে আসল কাজটা করেছেন সাকিব আল হাসান। বোলিংয়ে ২ উইকেট নেওয়ার পর ব্যাট হাতে অপরাজিত ১২৪ রানের ইনিংস খেলেছেন। সবমিলিয়ে ৪ ইনিংসে দুটি সেঞ্চুরি এবং একটি হাফসেঞ্চুরিতে ৩৮৪ রান নিয়ে সাকিব উঠে গেছেন চলতি আসরের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকদের তালিকার শীর্ষে।

মোস্তাফিজের ওভারটাকে টার্নিং পয়েন্ট বললেও সাকিবের কৃতিত্বকে অস্বীকার করলেন না মাশরাফি, ‘সাকিব দলের জন্য ধারাবাহিকভাবে পারফরম্যান্স করে যাচ্ছে। তার পারফরম্যান্স দলকে উজ্জীবিত করবে। আশা করি সবাই সাকিবকে দেখে অনুপ্রাণিত হবে। শেষ দুই ম্যাচে মুশফিকের হয়তো ভালো হয়নি। লিটন আজকে দুর্দান্ত খেলেছে। সাধারণত সে উপরে ব্যাটিং করে। দলের স্বার্থে ৫ নম্বরে নেমেও লিটন সফল হয়েছে।’

 

/এফআইআর/

x