‘ইন্টারনেট যাবে ঘরে ঘরে’

টেক রিপোর্ট ১৭:৫৮ , আগস্ট ০৯ , ২০১৮

সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন মোস্তাফা জব্বারশুরু হলো সাউথ এশিয়ান নেটওয়ার্ক অপারেটরস গ্রুপের (স্যানগ) বত্রিশতম সম্মেলনের মূল পর্ব। ঢাকার লা মেরিডিয়ান হোটেলে এ মাসের ২ তারিখ থেকে শুরু হওয়া নয় দিনব্যাপী এই সম্মেলনের আয়োজক ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (আইএসপিএবি)।

বৃহস্পতিবার (৯ আগস্ট) সম্মেলনের মূল পর্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। তিনি বলেন, স্যানগ ও বিডিনগ সম্মেলনের মাধ্যমে আমাদের তথ্যপ্রযুক্তি প্রকৌশলীরা তাদের জ্ঞান সমৃদ্ধ করার সুযোগ পাচ্ছেন। এটা প্রকৌশলীদের পাশাপাশি আমাদের দেশের জন্যও একটি আনন্দের বিষয়। মন্ত্রী জানান, ইন্টারনেট যাবে ঘরে ঘরে। আগামী কয়েক বছরের মধ্যে বাংলাদেশের প্রতি ঘরে ঘরে ইন্টারনেট পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে কাজ করছে সরকার। তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, খুব দ্রুতই আমরা এটি করতে সক্ষম হবো।

আইএসপিএবির সভাপতি আমিনুল হাকিম আয়োজনের সঙ্গে সম্পৃক্ত ব্যক্তি ও স্পন্সরদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। এছাড়া বক্তব্য রাখেন স্যানগের সভাপতি জেহাদুল কবীর, স্যানগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি নেপালের গৌরব রাজ ও বিডিনগের সভাপতি রাশেদ আমিন বিদ্যুৎ।

বিকেলে কর্মশালা ও টিউটোরিয়ালে অংশগ্রহণকারীদের সনদপত্র বিতরণ করেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

সম্মেলনের শেষ দুই দিনের (শুক্র ও শনিবার) গবেষণাপত্র উপস্থাপন পর্বে আমন্ত্রিত ও নিবন্ধিত ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত থাকবেন। আন্তর্জাতিকমানের বিশেষজ্ঞরা ইন্টারনেটবিষয়ক বিভিন্ন কারিগরি সমস্যা ও তার সমাধান নিয়ে নিজেদের অভিজ্ঞতা বিনিময় করবেন।

নয়দিনের এই সম্মেলনকে দুটি ভাগে ভাগ করে প্রথম পাঁচদিন অনুষ্ঠিত হয় অ্যাডভান্স নেটওয়ার্কবিষয়ক বিভিন্ন কারিগরি ওয়ার্কশপ। এর মধ্যে ছিল আইপিভি-৬, নেটওয়ার্ক সিকিউরিটি ও ভার্চুয়ালাইজেশনের মতো প্রয়োজনীয় বিষয়ের ওপর হাতে-কলমে প্রশিক্ষণ। শেষ চারদিনের টিউটোরিয়াল এবং মূল সম্মেলন পর্বে রয়েছে বিভিন্ন গবেষণাপত্রের উপস্থাপনা যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো ইন্টারনেট অব থিংস, ডিএনএস সিকিউরিটি ও এমপিএলএস ইত্যাদি। দেশ ও দেশের বাইরের বিভিন্ন খ্যাতনামা প্রশিক্ষকরা এই সব কারিগরি ওয়ার্কশপ এবং টিউটোরিয়ালগুলো পরিচালনা করেন।

 

/এইচএএইচ/

x