প্রয়োজন মাত্র ১৪ হাজার টাকা

তারুণ্য রিপোর্ট ১৮:৩৩ , জানুয়ারি ০৩ , ২০১৮

আজ থেকে প্রায় ৬০ বছর আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদে ভর্তি হয়েছিলেন নিতুন কুণ্ডু। তার কোনও থাকার জায়গা ছিলোনা। তিনি ফুটপাতে ঘুমিয়েছেন, খেয়ে- না খেয়ে দিন কাটিয়েছেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা নিয়ে তিনি যেমন নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন তেমনি বিপ্লব সাধন করে গেছেন বাংলাদেশের আসবাবের জগতে। তিনি প্রতিষ্ঠা করে গেছেন বহুল পরিচিত আসবাব নির্মানকারী প্রতিষ্ঠান অটোবি।

৬০ বছর পর তেমনই এক সম্ভাবনা উঁকি দিচ্ছে। শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার কাঠমিস্ত্রি রফিক মিঞার ছেলে কাজী কামরুজ্জামান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইনস্টিটিউটের ভর্তি পরীক্ষায় চান্স পেয়েছেন। কিন্তু সামনে বাঁধা ভর্তির টাকা। বাবা কাজ করে সারাদিনে যা আয় করেন তা দিয়ে পাঁচ সদস্যের সংসার চালানোই দুস্কর। তিনি কোথায় পাবেন ছেলের বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির টাকা। স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘ডিওএইচপিএস’ এর সহযোগিতায় এ্যাডভ্যান্স রেসিডেন্সিয়াল মডেল কলেজ থেকে সে উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করেছিলেন কামরুজ্জামান। এখন উচ্চ শিক্ষা গ্রহণের ইচ্ছাটাই বাধাপ্রাপ্ত।

বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য প্রয়োজন প্রায় ১৪ হাজার টাকা। এই ৭ জানুয়ারির মধ্যে টাকাটা যোগাঢ় করে ভর্তি হতে হবে কামরুজ্জামানকে। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির পর হয়তো অনেক সুযোগ সুবিধা পাবেন তিনি। তবে ভর্তির জন্য এ পরিমাণ টাকা জমা দিতে হবে। কামরুজ্জামান বিশ্বাস করে কোনও না কোনও মানুষ তাকে সহায়তা করতে এগিয়ে আসবেন। আর সে সহযোগিতায় তিনিও হয়ে উঠবেন নিতুন কুণ্ডুর মতো কেউ।

/এফএএন/

x